বিনোদন

বৃহস্পতিবার | ১৯ জুলাই, ২০১৮ | ৪ শ্রাবণ, ১৪২৫ | ৪ জিলক্বদ, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » বিনোদন » পূর্ণ প্রেক্ষাগৃহে ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’

পূর্ণ প্রেক্ষাগৃহে ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’

পূর্ণ প্রেক্ষাগৃহে ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’

সারা দেশে ৫০টি প্রেক্ষাগৃহে এবারের ঈদে মুক্তি পেয়েছে এম এ জলিল অনন্ত পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’। মুক্তির প্রথম দিন থেকেই ছবিটি পূর্ণ প্রেক্ষাগৃহ চলছে বলে জানিয়েছেন অধিকাংশ প্রেক্ষাগৃহ কর্তৃপক্ষ।

বলাকা সিনেওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপক এফ আর জয় প্রথম আলো ডটকমকে বলেছেন, ‘অনন্ত অভিনীত ছবি মানেই প্রেক্ষাগৃহ পূর্ণ। গত বছর তাঁর অভিনীত “‘মোস্ট ওয়েলকাম” ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল। এবার অভিনয়ের পাশাপাশি তাঁর পরিচালিত ছবি “নিঃস্বার্থ ভালোবাসা” মুক্তি পেয়েছে। ঈদের দিন থেকেই প্রেক্ষাগৃহ পরি। এককথায় যদি বলতে হয়, বাম্পার-বাম্পার এবং সুপারবাম্পার। শেষ রাতের শোতে শুধু কিছু আসন খালি থাকে।’

জয় আরও বলেন, ‘যা অবস্থা দেখছি, তাতে মনে হচ্ছে আরও বেশ কদিন এভাবে চলতে থাকবে। এটা চলচ্চিত্রের জন্য খুবই ইতিবাচক।’

এদিকে রাজধানীর বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সেও একই চিত্র দেখা গেছে। এখানে হলিউডের তিনটি ব্যবসাসফল ছবির পাশাপাশি মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশের একটি মাত্র ছবি। আর সেটি হলো ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’। অনেককেই নিজেদের পছন্দের সময়ে টিকিট না পেয়ে হতাশ হতে হচ্ছে।

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে স্টার সিনেপ্লেক্সে অনন্তর ছবি দেখতে এসেছেন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন। সঙ্গে স্ত্রী ও ছেলেমেয়ে।  তিনি বলেন, ‘সারা বছর এমনিতে নানা কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। সবাইকে একসঙ্গে সময় দেওয়া হয়ে ওঠে না। ঈদে পরিবারের সবাইকে একসঙ্গে সময় দেওয়া হয়। অনন্তর ছবি আমার স্ত্রী থেকে শুরু করে ছেলেমেয়েদেরও খুব পছন্দ। তাদের আবদার পূরণ করতেই একসঙ্গে ছবিটি দেখতে আসা। তবে অনেক কষ্টে টিকিট সংগ্রহ করতে হয়েছে।’

নাসির উদ্দিন আরও বলেন, ‘গতবার প্রেক্ষাগৃহে অনন্ত অভিনীত “মোস্ট ওয়েলকাম” ছবিটি দেখে ভালোই লেগেছিল। বলতে পারেন, এর পর থেকেই তাঁর ছবি দেখার প্রতি আগ্রহ জন্মেছে।’

এদিকে অনন্ত জানিয়েছেন, বলাকা ও স্টার সিনেপ্লেক্সের মতো দেশের অন্য প্রেক্ষাগৃহগুলোতেও ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’ ছবিটি পূর্ণ প্রেক্ষাগৃহ যাচ্ছে। এমনকি কিছু কিছু প্রেক্ষাগৃহে টিকিট কালোবাজারি হচ্ছে বলেও জানান তিনি।
এবারের ঈদে আরও দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। এগুলো হলো বদিউল আলম খোকনের ‘মাই নেম ইজ খান’ এবং পি এ কাজলের ‘ভালোবাসা আজকাল’। এই দুই ছবির নায়ক হলেন শাকিব খান। তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছেন অপু বিশ্বাস ও নবাগত মাহি। এই ছবি দুটোও আনুপাতিক হারে ব্যবসা করছে বলে প্রেক্ষাগৃহ সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে।

এম এ জলিল অনন্ত পরিচালিত ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’ ছবিতে অনন্ত ছাড়াও অভিনয় করেছেন বর্ষা, রাজ্জাক, মিশা সওদাগর, সুচরিতা, সিরাজ হায়দার, ডনসহ আরও অনেকে।
একজন সাধারণ মেয়েকে চলচ্চিত্রের নায়িকা হওয়ার ক্ষেত্রে যেসব বাধা-বিপত্তির মুখোমুখি হতে হয়, তা-ই ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’ ছবির গল্প।

‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’ ছবির গানগুলোতে কণ্ঠ দিয়েছেন সামিনা চৌধুরী, কিশোর, ভারতের শান, জুবীন গার্গ, কৈলাশ খেরসহ আরও অনেকে।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন