পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

শুক্রবার | ২০ অক্টোবর, ২০১৭ | ৫ কার্তিক, ১৪২৪ | ২৮ মহররম, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » খবর » পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য » যানজট হ্রাসে গণপরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণে সুপারিশ

যানজট হ্রাসে গণপরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণে সুপারিশ

যানজট হ্রাসে গণপরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণে সুপারিশ

পরিবহন পরিকল্পনায় গণ-পরিবহনের প্রতি অবহেলা, নানা অনিয়ম আর অব্যবস্থাপনায় যাত্রী হয়রানি চরম আকার ধারণ করেছে। নৌ, রেল, বাসসহ গণ-পরিবহনে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির কারণে মানুষ বাধ্য হয়ে প্রাইভেটকারের দিকে ঝুঁকছে। ফলে রাস্তায় অসহনীয় যানজটে ঘন্টার পর ঘন্টা দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। গণ-পরিবহনের উন্নয়ন না করে প্রাইভেটকার ব্যবহার উৎসাহিত করার ক্রমবর্ধমান এ ধারা চলতে থাকলে অদূর ভবিষ্যতে পরিবহন বাস্তবতার যে চিত্র আমরা দেখতে পাই তা কেবল রাজধানী নয় সারা দেশের জন্যই রীতিমত আতংকজনক।

ঢাকায় যানজটের কারণে নষ্ট হচ্ছে অমূল্য সময়, অপচয় হচ্ছে অতি মূল্যবান জ্বালানী এবং দূষিত হচ্ছে প্রাকৃতিক ও বসবাসের পরিবেশ। এটি শুধুমাত্র ঢাকায় নয়, বিশ্বের যেখানেই প্রাইভেট কারের উপর নির্ভরশীলতা বেড়েছে সর্বত্র একই চিত্র। বিআরটিএর সূত্রমতে ২০০৯ সাল পর্যন্ত ঢাকা শহরে প্রাইভেট কার, জিপসহ প্রায় দুই লক্ষাধিক নিবন্ধিত ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল করছে। পর্যায়ক্রমে নতুন গাড়ি যুক্ত হওয়ার হার অনেক বেশি পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। ঢাকা একটি ঘনবসতিপূর্ণ শহর। এখানে প্রইেভেট কারের বৃদ্ধিতে রাস্তা, পার্কিং সুবিধা দিতে গিয়ে নাগরিকদের মৌলিক প্রয়োজন মেটানোর মত জায়গা সংকৃচিত হয়ে পড়ছে। এছাড়া প্রাইভেট কার বৃদ্ধি পাওয়ায় ফ্লাইওভার, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের মত অবকাঠমো তৈরির জন্য বেশি বেশি অর্থ বরাদ্দের কারণে পানি, বিদ্যূৎ, গ্যাস, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ অতি গুরুত্বপূর্ণ খাতসমূহ অবহেলিত হয়ে পড়ছে। এজন্য এখনই সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে প্রাইভেট নিয়ন্ত্রণ এবং একই সঙ্গে পাবলিক বাস, রেল, নৌ-যান, হাঁটা, সাইকেল ও রিকশাসহ একটি সমিন্বত গণ যাতায়াত ব্যবস্থা গড়ে তোলা প্রয়োজন।

01-monju

প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিতে সৃষ্ট সমস্যাসমূহ:

যানজট:

প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিতে যানজটে সময় ও উৎপাদনশীলতা হ্রাস পায়।

ভূমির অপচয়:

প্রাইভেট কারের চলাচল ও পার্কিং এর জন্য শহরের মূল্যবান জায়গার অপব্যবহার হচ্ছে। একটি প্রাইভেট কার চলাচলের জন্য অনেক বেশি জায়গা নেয় এমনকি দিনের প্রায় নব্বই ভাগ সময় পার্কিং অবস্থায় থাকে।

দূষণ:

প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিতে সৃষ্ট বায়ূ ও শব্দদূষণ এর  পরিবেশ ও স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

জ্বালানী নিরাপত্তা:

প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিতে যাতায়াত ব্যবস্থায় জ্বালানীর অপচয় বৃদ্ধি পাচ্ছে।

সামাজিক সম্পর্ক:

প্রাইভেট কারের ব্যবহার বৃদ্ধি সামাজিক সম্পর্ক বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অন্তরায়।03-monju

উন্মূক্ত স্থান:

শহরে শিশু-কিশোরদের খেলাধূলা ও বয়স্কদের আড্ডার জায়গা সংকোচনের অন্যতম কারণ প্রাইভেট কারের বৃদ্ধি।

দূর্ঘটনা:

প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিতে দূর্ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তন:

বিশ্বে যানবাহন খাত থেকে ২৫ শতাংশ কার্বন নির্গমন হয়। প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিই কার্বণ নির্গমনের অতিমাত্রায় বৃদ্ধি করছে।

নান্দনিক সৌন্দর্য্য:

প্রাইভেট কারের বৃদ্ধিতে পার্কিং, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ও ফ্লাইওভারের মত অবকাঠামো শহরের নান্দনিক সৌন্দর্য্য নষ্ট করে।

 

সূত্র: পরিবশে বাঁচাও আন্দোলন (পবা)

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন