শীর্ষ খবর

সোমবার | ২০ নভেম্বর, ২০১৭ | ৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ | ২৯ সফর, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » শীর্ষ খবর » ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাস ধর্মঘট

ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাস ধর্মঘট

ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাস ধর্মঘট
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চলছে বাস মালিক ও শ্রমিকদের আট ঘণ্টার ধর্মঘট।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি বদিউজ্জামান  জানান,  বুধবার সকাল ৬টা থেকে ধর্মঘটের কারণে মহাসড়কে যাত্রীবাহী কোনো বাস চলছে না। বেলা ২টা পর্যন্ত এ ধর্মঘট পালন করবে আন্তঃজেলা বাস মালিক সমিতিসহ পাঁচটি সংগঠন। তবে, ট্রাক ও অন্যান্য মালবাহী গাড়ীসহ অভ্যন্তরীণ রুটের বাহনগুলো যাথারীতি চলাচল করছে।

ধর্মঘটের মধ্যে সকাল ১০টা পর্যন্ত কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানান ওসি। সমিতির সাধারণ সম্পাদক কফিল উদ্দিন  জানান, পুর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুসারে যানবাহন ভাংচুর এবং জ্বালাও-পোড়াওয়ের প্রতিবাদে এই ধর্মঘট ডেকেছেন তারা।

আন্তঃজেলা বাস মালিক সমিতি, শুভপুর বাস মালিক সমিতি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন, আন্তঃজেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ও শুভপুর সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন যৌথভাবে এ ধর্মঘট পালন করছে।

মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নূরন্নবী রুবেল (২২) সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার জেরে সীতাকুণ্ডে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে এলাকাবাসী।

বিক্ষুব্ধ জনতা এ সময় পাঁচটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও বেশ কয়েকটি যানবাহন ভাংচুর করে।

দুপুরে বন্দরনগরীর বিআরটিসিতে বাস মালিক ও শ্রমিক নেতাদের এক যৌথসভায় ২৪ ঘণ্টা ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নেয়। পরে প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকের পর কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত করে তারা।

কফিল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ওই সভায় বলা হয়, মহাসড়কে আন্দোলনের নামে প্রতিনিয়তই বিশৃঙ্খলা চালানো হচ্ছে। একদিনেই ভাংচুর ও আগুনে মালিকদের ১৫ কোটি টাকার মতো ক্ষতি হয়েছে।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন