ক্রিকেট

মঙ্গলবার | ২৫ জুলাই, ২০১৭ | ১০ শ্রাবণ, ১৪২৪ | ১ জিলক্বদ, ১৪৩৮

প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » আন্তর্জাতিক » ক্রিকেট » বাংলাদেশকে টেস্ট খেলার স্বাদ পাইয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

বাংলাদেশকে টেস্ট খেলার স্বাদ পাইয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

বাংলাদেশকে টেস্ট খেলার স্বাদ পাইয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

সাকিবের অনবদ্য ৫ উইকেট পাবার পরেও নিউজিল্যান্ড ৮ উইকেট হারিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষে ১৩৭ রানের লিড নিয়ে বাংলাদেশকে চাপের মধ্যে রেখেছে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে আজ নিউজিল্যান্ড ৩ উইকেটে ১০৭ রান নিয়ে খেলা শুরু করে ।সাকিবের ৫ উইকেট শিকার বাংলাদেশ শিবিরে যে উল্লাস দেখা দিয়েছিল তা নিউজিল্যান্ডের টেস্ট ক্রিকেট মেজাজী বোলারদের ব্যাটিংএ হতাশায় পরিনত হয়।

প্রথমে বাংলাদেশী ‌বোলাররা অতিথিদের প্রথম ইনিংসে তিনশ’ রানের মধ্যে বেধে ফেলার পরিকল্পনা  করেছিল  এ জন্য আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান রস টেইলর ও কেন উইলিয়ামসনকে দ্রুত ফেরানোর শর্ত দিয়েছিলেন ।

উইকেটে ধৈর্য্যের প্রতিমূর্তি হয়ে দাঁড়িয়ে যান উইলিয়ামসন। আর অনবদ্য সব শটে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক তুলে নেন কোরি অ্যান্ডারসন। এই জুটির দৃঢ়তায় প্রথম সেশনে যোগ হয় ১২৪ রান।কিন্তু এর পর আগের দিন বাংলাদেশের উদাহরণ অনুসরণ না করে ‘টেস্ট’ মেজাজেই খেলতে থাকে নিউ জিল্যান্ড।

আব্দুর রাজ্জাক উইলিয়াসনকে  জুটি ভাঙ্গার আগেই ১৪০ রানের অনবদ্য জুটি গড়ে নিউ জিল্যান্ডকে বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে দেন তারা।

সাকিব ডগ ব্রেসওয়েলকে (১৭) মুশফিকের ক্যাচে পরিণত করে টেস্টে দশমবারের মতো ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকারের পর অনিয়মিত স্পিনার নাসির হোসেন ফিরিয়ে দেন নিল ওয়াগনারকে।এরপর আগের টেস্টেই দশম উইকেটে শতরানের জুটি গড়ে শতক করা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বিজে ওয়াটলিং আবার প্রতিরোধ গড়ে তুলেন।

ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতকে পৌঁছানো সোধি ৫৫ রানে অপরাজিত তার ৬৭ বলের ইনিংসে রয়েছে ৭টি চার। অন্যদিকে ওয়াটলিংয়ের অপরাজিত ৫৯ রান এসেছে ১৫৬ বলে।

৯৭ রানে ৫ উইকেট নেয়া সাকিবই বাংলাদেশের সেরা বোলার। আগের দিন বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হিসেবে আসা এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার দলের কম রান সংগ্রহ করা নিয়ে বলেছিলেন, পাঁচ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর বেশি রান করা সম্ভব ছিল না। জবাবে উইকেটে টিকে থেকে টেস্টে কিভাবে ব্যাটিং করতে হয় দেখিয়ে দিয়েছে অতিথিরা। নিউজিল্যান্ড ব্যাটিং ধরন দেখে বাংলাদেরশর শিক্ষা নেওয়া উচিত লোয়ার অর্ডারে ব্যাট করেও দলকে লিডিং পজিশনে নিয়ে যাওয়া যায় । আর এ শিক্ষা বাংলাদেশকে টেস্ট খেলেই শিখতে হবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ২৮২ (তামিম ৯৫, মমিনুল ৪৭, মার্শাল ৪১; ওয়াগনার ৫/৬৪, সোধি ৩/৫৯)

নিউ জিল্যান্ড: ৪১৯/৮ (ফুলটন ১৪, রাদারফোর্ড ১৩, উইলিয়ামসন ৬২, টেইলর ৫৩, ম্যাককালাম ১১, অ্যান্ডারসন ১১৬, ওয়াটলিং ৫৯*, ব্রেসওয়েল ১৭, ওয়াগনার ৮, সোধি ৫৫*; সাকিব ৫/৯৭, নাসির ১/৭, আল-আমিন ১/৫৮, রাজ্জাক ১/৮৪)

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না। আবশ্যিক *

*


− 2 = 7

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>