রাজনীতি

শুক্রবার | ২০ অক্টোবর, ২০১৭ | ৫ কার্তিক, ১৪২৪ | ২৮ মহররম, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » খবর » রাজনীতি » পুলিশের গুলি বন্ধ করতে বলুন: মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর

পুলিশের গুলি বন্ধ করতে বলুন: মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর

পুলিশের গুলি বন্ধ করতে বলুন: মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর

সোমবার সকালে বি এন পির কেন্দ্রীয় কার্যালয় তিনি সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, অবিলম্বে পুলিশের  গুলি বন্ধ করুন। অন্যথায় জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত অভ্যূত্থানের মধ্য দিয়ে দেশ একটি চরম পরিণতিতে পৌঁছাবে।

মির্জা আলমগীর বলেন, বিরোধী দলের শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশ গুলি করছে। এটা কোনো গণতান্ত্রিক দেশে গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বারবার বলছেন শক্ত হাতে বিরোধী দলকে দমন করা হবে এবং মহানগর আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেছেন বিরোধী দলকে শায়েস্তা করা হবে। এটা সহিংসতার ভাষা। তারা শক্তি দিয়ে, বন্দুক দিয়ে বিরোধী দলকে দমন করতে চায়। কিন্তু এটা আর সম্ভব হবে না। হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছে। এই অভ্যূত্থান মোকাবেলার শক্তি সরকারের নেই।

এ সময় তিনি বলেন, রাজশাহী, পটুয়াখালী, ময়মনসিংহে পুলিশ আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীদের সঙ্গে নিয়ে বিরোধী দলের মিছিলে হামলা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন এবং ঢাকার খিলগাঁও, বাড্ডা, তেজগাঁও এলাকায় পুলিশ আজ থেকে সরাসরি বিরোধী দলের মিছিলা দেখলেই গুলি করছে, এটা কোনোভাবেই গণতান্ত্রিক চর্চা নয়।

সংলাপ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা সংলাপ চাই, সমঝোতা চাই। কিন্তু সরকার সংলাপ চায় না। সংলাপের নাটক সাজিয়ে সংলাপের পরিবেশ নষ্ট করে দিয়ে এর দায়ভার বিএনপির ওপর চাপাতে চায় সরকার।

সংলাপে যাওয়া হবে কিনা এমন এক প্রশ্নে জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ২৯ অক্টোবরের পর যেকোনো দিন সংলাপে যেতে বিএনপি প্রস্তুত রয়েছে। সরকার ডাকলেই সংলাপে যাওয়া হবে।

তিনি বলেন, বাজিতপুরে বিরোধী দলের মিছিলে ১০০ জনের বেশি মানুষের সমাগম ঘটেছিল সেখানে গুলি করা হয়েছে, রাজশাহীতে পুলিশ ও সারকারি দলের ক্যাডারদের হামলায় ৪৬ জন আহত হয়েছে।

 

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন