ক্রিকেট

শনিবার | ১৯ আগস্ট, ২০১৭ | ৪ ভাদ্র, ১৪২৪ | ২৬ জিলক্বদ, ১৪৩৮

টাইগারদের বড় জয়

টাইগারদের বড় জয়

বৃষ্টির কারনে ডার্ক ওয়ার্থ/লুইস পদ্ধতিতে নিউজিল্যান্ডকে ৪৩ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যাবধানে এগিয়ে গেল টাইগাররা।Musfiq

আজ মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে, সপ্তম ওভারে ২৫ রানে প্রথম সারির তিন ব্যাটসম্যানের বিদায়ের ফলে, বাংলাদেশ দারুন চাপের মধ্যে পড়ে যায়। টেস্ট সিরিজে ফর্মে থাকা ওপেনার ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ৫ রান করে টিস সাউদির বলে এল বিডাব্লিউর ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন। অন্য দিকে মুমিনুল হক তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ‘ডায়মন্ড ডাক’ অর্থাৎ কোন বল না খেলেই শূন্য রানে সাঁঝ ঘড়ে ফিরে যান। এরপর মাত্র ১৩ রান করে বিদায় নেন এনামুল।

নাঈমের সাথে মুশফিকের চতুর্থ উইকেটে ১৫৪ রানের জুটি দলকে ৩ উইকেটে ১৭৯ রানের সম্মান জনক স্থানে নিয়ে যায়।

মুশফিকের ৯৮ বলের ৯০ রানের ইনিংসে ২টি ওভার বাউন্ডারি ও ৮ টি বাউন্ডারির মার রয়েছে।নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এই ১৫৪ রানের জুটি বাংলাদেশের সব চেয়ে বড়।

নাঈমের ১১৫ বলের মাধ্যমে ৮৪ রান করেন, এর মধ্যে ১২ টি চারের মার রয়েছে।

২০৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে বাহাতি ব্যাটসম্যান হামিশ রাদার ফোর্ডকে, ১ রানে বোল্ড করে টাইগারদের প্রথম সাফল্য এনে দেন সোহাগ গাজী। মাশরাফি বিন মতুর্জার বদলে বল করতে এসে প্রথম ওভারেই সাফাল্য পেয়েছেন বাগেরহাটের পেসার রুবেল হোসেন। rubel2ভয়ংঙ্কর ব্যাটসম্যান রস টেইলারকে মুশফিকের গ্লাভসবন্দী করেন তিনি। তারপর আর নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশের বোলারদের তান্ডবের সামনে দাঁড়াতে পারেনি। মাত্র ২৯.৫ ওভারে ১৬২ রানে অলআউট হয়ে যায় অতিথিরা। হ্যাটট্রিক করা এই রুবেল হোসেন ৪২ ম্যাচের ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত ৬ উইকেট পেলেন।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার ও পান বাগেরহাটের ক্ষিপ্ত গতির এই পেসার রুবেল হোসেন। তার সংগ্রহ ২৬ রানে ৬ উইকেট।

স্কোর:

বাংলাদেশ: ৪৯.৫ ওভারে ২৬৫ রান।

নিউজিল্যান্ড: ২৯.৫ ওভারে  ১৬২ রানে অলআউট।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না। আবশ্যিক *

*


− 3 = 0

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>