প্রধান খবর

বুধবার | ১৮ অক্টোবর, ২০১৭ | ৩ কার্তিক, ১৪২৪ | ২৭ মহররম, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » প্রধান খবর » পিলখানা হত্যা মামলার রায় আজ

পিলখানা হত্যা মামলার রায় আজ

পিলখানা হত্যা মামলার রায় আজ

বিডিআর সদর দপ্তরে, ২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি বিদ্রোহের নামে  ঘটেছিল এক নারকীয় হত্যাকাণ্ড। পুননির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী আজ ৫ নভেম্বর পিলখানা হত্যা মামলার রায় ঘোষনা করা হবে। ২০১১ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি মামলার বিচার কাজ শুরু হয়। চার বছর আট মাসে মামলাটি ২৩২ কার্যদিবস অতিক্রম করে। আজ  রায় ঘোষণার মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ মামলার সকল কার্যক্রম।

এ মামলার বিচার কার্য পরিচালনা করার জন্যে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসার পাশে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার সংলগ্ন মাঠে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের অস্থায়ী এজলাস স্হাপন করা হয়।

২০ অক্টোবর এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামি পক্ষের যুক্তিতর্ক  উপস্থাপন শেষ হয়। সেদিনই বিচারক রায়ের জন্য ৩০ অক্টোবর (বুধবার) দিন ধার্য করেছিলেন। কিন্তু রায় লিখার কাজ সম্পূর্ন শেষ না হওয়ায় বিচারক আখতারুজ্জামান ৫ নভেম্বর দিন পুননির্ধারন করেন।

২০০৯ সালের ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পিলখানায় তত্কালীন বাংলাদেশ রাইফেলসের (বিডিয়ার) সদর দপ্তরে বিডিয়ার বিদ্রোহের ঘটনায় ৫৭ জন সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জনকে হত্যা করা হয়। এই হত্যাকান্ডের ঘটনায় প্রথমে লালবাগ থানায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলা করা হয়। পরে মামলা দুটি নিউমার্কেট থানায় স্থানান্তরিত হয়। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) তদন্ত শেষে হত্যা মামলায় ২৩ জন বেসামরিক ব্যাক্তিসহ প্রথমে ৮২৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। পরে সম্পূরক অভিযোগপত্রে আরও ২৬ জনের নাম অর্ন্তভুক্ত করা হয়।২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি বিডিআর বিদ্রোহের সূচনা হয়েছিল সুসজ্জিত দরবার হল থেকে। সকাল সাড়ে নয়টার দিকে বিডিআরের তৎকালীন মহাপরিচালক শাকিল আহমেদের বক্তব্যের সময় দুজন সিপাহী অতর্কিতে মঞ্চে প্রবেশ করেন। এরপর জওয়ানেরা দুদিন ধরে বিডিআর মহাপরিচালকসহ ৭৪ জনকে হত্যা করে। কর্মকর্তাদের বাড়িঘরে লুটপাট ও ভাঙচুর চালায়। সরকারি নথিপত্রেও আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। বিদ্রোহ শুরুর ৩৩ ঘণ্টা পর শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতির অবসান হয়।

এছাড়া বিস্ফোরক আইনে করা মামলায় ৮০৮ জনরে বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি। এ মামলায়ও সম্পূরক অভিযোগপত্রে আরও ২৬ জনকে অর্ন্তভুক্ত করা হয়। এরমধ্যে ২০ জন আসামি পলাতক রয়েছেন।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন