সম্পাদকীয়

মঙ্গলবার | ২৫ জুলাই, ২০১৭ | ১০ শ্রাবণ, ১৪২৪ | ১ জিলক্বদ, ১৪৩৮

প্রচ্ছদ » মতামত » সম্পাদকীয় » ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার হালচিত্র

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার হালচিত্র

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার হালচিত্র

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ইতিহাস বড়ই করুনাদায়ক এখন। এক্ষেত্রে হাজারো শিক্ষার্থীর জীবন প্রতিবছর কোন না কোন ভুলের স্বীকার হয়। এ বিষয়ে কোন পরিকল্পনা কর্তৃপক্ষ কবে নিতে পারবে আমরা জানিনা। এ বছর ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। এ বছর সব শিক্ষার্থীর রোল নম্বরের প্রথম সংখ্যাটি ছিল ‘৬’। তাদের দেওয়া উত্তরপত্রে ঐ সংখ্যাটি আগে থেকে পূরণ করা ছিল। কিন্তু পরীক্ষার হলে এ বিষয়ে কোন নির্দেশ না দেওয়ায় মোট ১৫ হাজার ৩৮ জন শিক্ষার্থী রোল নম্বর পূরণ করায় ভুল করে। এর কারণে ফলাফলে তাদের বিষয়ে কোন তথ্যই খোজেঁ পাওয়া যাচ্ছেনা। জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভর্তি পরীক্ষায় ছাত্র-ছাত্রীরা মানসিকভাবে চিন্তিত থাকবে এটা খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু একজন এইচ.এস.সি পাশ শিক্ষার্থীর মানসিক শক্তি আর একজন শিক্ষকের মানসিক শক্তি কখনও একরকম হতে পারেনা। সেক্ষেত্রে শিক্ষকের অগ্রণী ভূমিকা পালন করা উচিত শিক্ষার্থীর মানসিক চাপ কমানোর জন্য। পরীক্ষার হলের দায়িত্ব পালনকারী শিক্ষকরা সে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার হালচিত্র

এ বিষয়ে সবাই একমত হবেন যে, শিক্ষার্থীদের রোল নম্বর পূরণ করার জন্য পরীক্ষা হলে উপস্থিত সকল শিক্ষকদের এ দায়িত্ব আন্তরিক ভাবে পালন করা উচিত ছিল। যেহেতু তারা তাদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছে, সেক্ষেত্রে এই ১৫ হাজার ৩৮ জনের শিক্ষার্থীর পরীক্ষার ফলাফল কম্পিউটার এর মাধ্যমে যাচাই না করে হাতে পরীক্ষা করা উচিত ছিল। পৃথিবীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স শ্রেণীতে পরীক্ষা শুরুর সময়ও প্রশ্নপত্র পূরণের নিয়মাবলী বর্ণনা করার জন্য নির্দেশ দেয়া থাকে। এবং তারা কখনোই এ দায়িত্ব পালনে ভুল করেনা। কোন কোন ছাত্র-ছাত্রীর পরীক্ষার সব নিয়ম কানুন জানা থাকলেও সবার জন্য পরীক্ষার প্রস্তুতি হিসেবে সময় বরাদ্দ থাকে। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশে দুর্নীতি এবং পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা এখন  যেভাবে নিয়মিত ঘটনায় পরিণত হয়েছে তাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর মান নিয়ন্ত্রনের বিষয়টি একটি আলোচনার বিষয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন শিক্ষকের ভাষ্যমতে, তারা মাঝে মাঝে এমন শিক্ষার্থী পান যারা সহজ বাংলা ও ইংরেজী লিখতে পারেনা। তাহলে কি ধরে নিবো পরীক্ষাকালীন এতসব জটিলতার মধ্য দিয়ে চক্রান্তকারীরা তাদের পছন্দমত ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তির পায়তারা করছে এবং করে আসছে?

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না। আবশ্যিক *

*


8 − 3 =

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>