প্রধান খবর

বৃহস্পতিবার | ১৯ অক্টোবর, ২০১৭ | ৪ কার্তিক, ১৪২৪ | ২৮ মহররম, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » প্রধান খবর » পিলখানা হত্যা মামলার রায়

পিলখানা হত্যা মামলার রায়

পিলখানা হত্যা মামলার রায়

বিডিআর হত্যা মামলা রায়ে শেষ পর্যন্ত ১৫৪ জনের ফাঁসি, ১৫৯ জনের যাবজ্জীবন, ২৬১ জনের কারাদন্ড ও ২৭১ জনের খালাস প্রদান করেছেন আদালত।

বিডিআরের সদরদপ্তরে ২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি বিদ্রোহের ঘটনায় হত্যা, লুট, নির্যাতনসহ বিভিন্ন অপরাধের দায়ে এ বিদ্রোহের কমান্ডার ডিএডি তৌহিদসহ ১৫৪ জনের ফাঁসি ও ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত।

নাছির উদ্দিন পিন্টু এবং হাজী মোহাম্মদ তোরাব আলী’কেও যাবৎ জীবন কারাদন্ড ও পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করেন ৫৮ জন সেনা কর্মকর্তা হত্যার দায়ে।

৮৫০ জন আসামির মধ্যে অন্যান্য ১৫৯ জনকে যাবজ্জীবন, বিভিন্ন মেয়াদে ২৬১ জনকে কারাদণ্ড ও কোন অপরাধ প্রমানিত না হওয়ায় ২৭১ জনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়। এরমধ্যে ৪জন বিচার চলাকালে মারা যাওয়ায় মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর বকশীবাজার আলিয়া মাদরাসা মাঠে অস্থায়ী আদালতে ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ ড. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন।

রায়ের আদেশে বিচারক বলেন, আসামীদের মৃত্যুদণ্ডাদেশ মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগ কর্তৃক অনুমোদিত হলে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত আসামীদের গলায় ফাঁসি দিয়ে তাদের ঝুলিয়ে রেখে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে হবে। আসামীদের মৃত্যুদণ্ডাদেশ মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগ কর্তৃক অনুমোদনের নিমিত্তে মামলার নথিপত্র ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৭৪ ধারা অনুযায়ী মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে প্রেরণ করা হোক।

বিচারক আরো বলেন, মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামীরা ইচ্ছা করলে মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে আপিল দায়ের করতে পারবেন।

যাবজ্জীবন ও বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামীদের হাজত বাসকালীন সময় তার বিরুদ্ধে প্রদত্ত দণ্ড থেকে বাদ যাবে।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন