21 Feb 2018
এই মুহূর্তে

মঙ্গলবার | ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ | ৮ ফাল্গুন, ১৪২৪ | ২ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » এই মুহূর্তে » আজ ১০ মহররম পবিত্র আশুরা

আজ ১০ মহররম পবিত্র আশুরা

আজ ১০ মহররম পবিত্র আশুরা

বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর কাছে একটি অতিমর্যাদা সম্পন্ন দিন আজ । মহান আল্লাহ্‌ রাব্বুল আলামিন এই দিনে পৃথিবী সৃষ্টি করেছিলেন। ১৩৭৫ বছর আগে হিজরি ৬১ সালে এই দিনে কারবালা প্রান্তরে সংঘটিত হয়েছিল বিশ্ব ইতিহাসের বিয়োগান্তক ঘটনা। ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্জ ও যথাযোগ্য মর্যাদায় বিশ্বের অন্যান্য মুসলিম দেশের মতো বাংলাদেশেও দিবসটি পালিত হচ্ছে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ এডভোকেট, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া পৃথক বানী দিয়েছেন। বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠন দিবসটি উপলক্ষে দিনব্যাপি কর্মসূচি গ্রহন করেছে। এ উপলক্ষে ঢাকার হুসেনী দালানের ইমাম বাড়ী থেকে তাজিয়া মিছিল বের হবে।

ইয়াজিদের দুঃশাসন অপশাসনের বিরুদ্ধে সত্য ও ন্যায়ের লড়াইয়ে অবতীর্ন হয়েছিলেন বিশ্ব নবী হযরত মুহাম্মদ (স.) এর দৌহিত্র হযরত ইমাম হুসাইন (রা.)। হযরত ইমাম হুসাইনের পরিবার ও সফর সঙ্গীরা যাতে পানি না পায় সে জন্য ফোরাত নদীর তীরে নিষ্ঠুর ইয়াজিদ বাহিনী ঘাঁটি গেড়ে বসেছিল। ফোরাতের পানি ইমাম শিবিরের জন্য কয়েকদিন ধরে নিষিদ্ধ থাকায় নবী-পরিবারের সদস্যরাসহ ইমাম শিবিরের সবাই ছিলেন পিপাসায় কাতর। প্রচন্ড গরমে শিশুদের অবস্থা হয়ে পড়ে শোচনীয়।

জালিম ও দুরাচারী পাপিষ্ঠ ইয়াজিদকে মুসলিম বিশ্বের খলিফা হিসেবে মেনে নিতে অস্বীকার করায় হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)ও তাঁর পরিবারের সব পুরুষ সদস্যসহ (কেবল ইমাম যেইনুল আবিদিন আ. ছাড়া)  ইমামের একনিষ্ঠ সমর্থক এবং নবী-পরিবারের প্রেমিক একদল মুমিন মুসলমানকে নৃশংসভাবে শহীদ করা হয়েছিল কারবালায়।

ইয়াজিদ বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে ১০ মহররম বিজয়ের দ্বার প্রান্তে আসার পর সীমারের হাতে শহীদ হন হযরত ইমাম হুসাইন (রা.)। বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর কাছে এই দিনটি তাই শোকের দিন হিসেবে পরিগনিত। একই সাথে অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে মাথা উঁচু করে লড়াইয়ের প্রত্যয় গ্রহনেও মুসলমানদেরকে এ দিবস উজ্জীবিত করে।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন