প্রবাসীদের পাতা

মঙ্গলবার | ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১০ আশ্বিন, ১৪২৫ | ১৪ মহররম, ১৪৪০

প্রচ্ছদ » প্রবাসীদের পাতা » রফিকুল ইসলাম আর নেই

রফিকুল ইসলাম আর নেই

রফিকুল ইসলাম আর নেই

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের রুপকার রফিকুল ইসলাম আর নেই।তিনি কানাডার ভ্যাঙ্কুভার হাসপাতালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে আজ স্থানীয় সময় ভোর সোয়া সাতটায় ইন্তেকাল করেছেন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের রূপকার, মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম (ইন্নালিল্লহি …রাজিউন)। মৃত্যুকালে স্ত্রী বুলা ইসলাম, দুই পুত্র জোত্যি ইসলাম, জয়ন্ত ইসলাম এবং অসংখ্য প্রিয়জন রেখে গেছেন। তার বয়স হয়েছিলো ৬০ বছর।
আজ বাদ আছর ভ্যাঙ্কুভারের রিচমন্ড মসজিদে জানাজার পর সিলিওয়াকে তাকে দাফন করা হবে। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তাকে জাতীয় পতাকায় রাষ্ট্রীয়ভাবে শ্রদ্ধা জানানোর ব্যবস্থা করেছে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস। সেই সাথে হাই কমিশনার কামরুল আহসান এক বিবৃতে শোক প্রকাশ করেছেন।

রফিকুল ইসলাম মহান ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার জন্যে ইউনেস্কোতে সর্বপ্রথম প্রস্তাব উত্থাপন করেন। ১৯৯৮ সালের ৯ জানুয়ারি জাতিসংঘের তৎকালীন জেনারেল সেক্রেটারি কফি আনানকে একটি চিঠি লেখেন। পরে তা পর্যায়ক্রমে ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনেস্কোর প্যারিস অধিবেশনে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

বাঙালি জাতির এই গৌরবোজ্জ্বল অবদানের জন্য তাঁদের ‘এ গ্রুপ অব মাদার ল্যাংগুয়েজ অফ দ্যা ওর্য়াল্ড’ ২০০২ সালে একুশে পদক অর্জন করেন। এবং মৃত্যুর ক’দিন আগে তিনি স্বরব্যঞ্জন পদক পান।

তিনি ১৯৫৩ সালের ১১ এপ্রিল কুমিল্লা শহরের উজীরদিঘীর পাড়ে জন্ম গ্রহণ করেন। পিতা আবদুল গণি। মাতা করিমুন্নেসা। ১০ ভাই-বোনের মধ্যে তিনি অষ্টম। কুমিল্লা উজীর দিঘীর পাড় হরে কৃষ্ণ স্কুলে তার শিক্ষা জীবন শুরু। ১৯৫৮ সালে কুমিল্লা হাইস্কুল থেকে মেট্রিকুলেশন পাস করেন। এইচএসসি ও ডিগ্রি পাশ করেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে। ১৯৭১ সালে তিনি এ কলেজের ছাত্র সংসদের সাহিত্য সম্পাদক ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মার্কেটিংয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন। একাত্তরে ২নং সেক্টরে মুজিব বাহিনীর হয়ে মুক্তিযুদ্ধ করেন। যুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় সম্মুখ যুদ্ধে তার ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম সাফু শহীদ হন। তিনি দেশে ৭ বছর প্রশিকায় চাকরির পর ১৯৯৫ সালে কানাডায় পাড়ি জমান।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন