Azizul Bashar
আন্তর্জাতিক

শুক্রবার | ১৭ আগস্ট, ২০১৮ | ২ ভাদ্র, ১৪২৫ | ৫ জিলহজ্জ, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » খবর » আন্তর্জাতিক » অ্যাঙ্গোলায় নিষিদ্ধ হল ইসলাম: ভাঙ্গা হচ্ছে মসজিদ

অ্যাঙ্গোলায় নিষিদ্ধ হল ইসলাম: ভাঙ্গা হচ্ছে মসজিদ

অ্যাঙ্গোলায় নিষিদ্ধ হল ইসলাম: ভাঙ্গা হচ্ছে মসজিদ

অ্যাঙ্গোলা সরকার সেদেশে ইসলাম ধর্মকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে এবং দেশটির মসজিদগুলোও ধ্বংসের কাজ শুরু করেছে। বিশ্বে একমাত্র অ্যাঙ্গোলা সরকারই এ ধরনের পদক্ষেপ নিল।

আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত এই দেশটির কয়েকটি সংবাদপত্র অ্যাঙ্গোলার সংস্কৃতি মন্ত্রী রোজা ক্রুসির বক্তব্য উদ্ধৃত করে এই খবর দিয়েছে সম্প্রতি।ক্রুসি বলেছেন: তার দেশের বিচার ও মানবাধিকার মন্ত্রণালয় ইসলামকে বৈধ ধর্ম বলে অনুমোদন দেয়নি… তাই পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত মসজিদগুলো বন্ধ থাকবে।

ক্রুসি বলেছেন, ইসলাম ধর্ম অ্যাঙ্গোলার সাংস্কৃতিক প্রথাগুলোর সঙ্গে বৈপরীত্য রাখে বলে এই ধর্ম নিষিদ্ধ করা জরুরি হয়ে পড়েছে।

ইসলাম ধর্মকে নিষিদ্ধ করার প্রক্রিয়া হিসেবে দেশটির মসজিদসহ ইসলামী স্থাপনাগুলো ধ্বংসের কাজ শুরু করেছে অ্যাঙ্গোলা সরকার।

অ্যাঙ্গোলার কর্মকর্তারা ইসলামকে অবৈধ ধর্মীয় সম্প্রদায় বলে উল্লেখ করছেন। তবে দেশটিতে সত্যিই ইসলামের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে কিনা তা কোনো নিরপেক্ষ সূত্রে এখনও যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

অ্যাঙ্গোলার সংবিধানে নাগরিকদের ধর্মীয় স্বাধীনতার ব্যাপারে নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছে।

গত সোমবার ওয়াশিংটনস্থ অ্যাঙ্গোলার দূতাবাস ইসলাম ধর্মকে নিষিদ্ধ করার খবর নাকচ করে দিয়ে বলেছে, অ্যাঙ্গোলা এমন একটি দেশ যে ধর্মে হস্তক্ষেপ করে না। এই দেশে নানা ধর্ম ও মতের নাগরিক রয়েছে বলে দূতাবাস কর্মকর্তা জানান। গত অক্টোবর মাসে অ্যাঙ্গোলার রাজধানী লুয়ান্ডার ভিয়ানা জাঙ্গো এলাকায় একটি মসজিদের মিনার গুড়িয়ে দেয়। সরকার এ বিষয়ে কোনো যৌক্তিক ব্যাখ্যা দেয়নি।

অ্যাঙ্গোলার বেশিরভাগ নাগরিকই ক্যাথলিক খ্রিস্টান। দেশটির এক কোটি ৯০ লাখ নাগরিকের মধ্যে মুসলমানের সংখ্যা ৮০ থেকে ৯০ হাজার।

 

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন