এই মুহূর্তে

বৃহস্পতিবার | ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ | ৩০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ | ২৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » এই মুহূর্তে » ক্যাশ দিয়েন, খুব ভাল হইবে

ক্যাশ দিয়েন, খুব ভাল হইবে

ক্যাশ দিয়েন, খুব ভাল হইবে

এ কথাটি বলেছেন চিফ হুইপ আ.স.ম ফিরোজ। যার আগমনকে স্মরণীয় করে রাখতে তার নির্বাচনী এলাকাবাসী প্রায় ৩০ লাখ টাকা ব্যয় করেছে তোরণ তৈরীতে।

এবার তারা খোশ আমদেদ জানিয়েছে ক্রেস্ট উপহার দিয়ে। কিন্তু জনগণ বুঝতেই পারেনি যে ভোট দিয়ে নির্বাচনে জয়ী করলেই জনগণের দায়িত্ব শেষ হয়ে যায়না!তারপর দলকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য ক্যাশ টাকা উপহার হিসেবে দিতে হবে। কারণ, নির্বাচন আমাদের দেশে প্রার্থীর জন্য একটি ‘ক্যাশবহুল’ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। এখানে ‘ব্যয়বহুল’ কথাটা না লিখে ‘ক্যাশবহুল’ লেখার একটা কারণ আছে। ব্যয়বহুল বলতে বিভিন্ন প্রকার অপ্রকৃত ব্যয়কে ও বুঝিয়ে থাকে, যা ক্যাশ টাকায় হিসেব করা যায় না। কিন্তু এখন নির্বাচনে জয়ী হতে হলে “ক্যাশ” খরচ করতে হয়, ভোট কিনতে ক্যাডার বাহিনী পুষতে হয়,আরও কত কি? আর এটা এখন রাজনীতির প্রয়োজন বলে কথা।

আজকের অধিকাংশ পত্রিকায় চিফ হুইপের ক্যাশ দিবার আহ্বানকে কঠিন সমালোচনা করেছে। তিনি কি চেয়েছেন সেটা নিয়ে আলোচনা করা মূখ্য উদ্দেশ্য নয়। নির্বাচনকে এ বিষয়টির সাথে জড়ানোর জন্যই যত আপত্তি আমাদের। যে নির্বাচনের মাধ্যমে একজন সাংসদ জাতির আইন প্রণেতার দায়িত্ব পান, সে কি পারেন প্রকাশ্যে দলের জন ক্যাশ টাকা চাইতে? আবার উপহার হিসেবে ক্রেস্ট পরে নেবার কথা বলতে। জনগণের ভালবাসার উপহার কি কখনোও দলীয় বা দলের স্বার্থে ব্যবহারের কথা উঠতে পারে?

তিনি কি তাহলে জনগণকে ভালবাসেন? না দলকে ভালবাসেন? যদিও দলের জন্য তার একটা দায়িত্ব রয়েছে। কিন্তু তা কি কখনও জনগণকে উপেক্ষা করে? যদি তাই হবে, তাহলে তার আগমণ উপলক্ষ্যে ৩০ লাখ টাকার তোরণ তৈরী না করার জন্য নির্দেশ দিলেই পারতেন। তাহলে কি আমাদের সাংসদরা খ্যাতির প্রচার ও ক্যাশ দুই-ই চায়?

এক্ষেত্রে এ বিষয়টা সবার কাছে ষ্পষ্ট যে, নির্বাচন অনেক ব্যয়বহুল। কিন্তু সে ব্যয়বহুলটা যে অনেক আগেই ক্যাশবহুল হয়ে গেছে তা এখন জনসম্মুখে প্রচার করতে দ্বিধা করল না! সেটা যে আমাদের নির্বাচিত গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত লজ্জাকর। নির্বাচনকে অবশ্যই আমাদেরকে “ক্যাশবহুলের” হাত থেকে বাঁচাতে হবে।

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন