Azizul Bashar
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

শনিবার | ২৬ মে, ২০১৮ | ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ | ১০ রমযান, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি » ক্যান্সার গবেষণায় ‘বঙ্গরত্ন’ পাচ্ছেন দক্ষিণ দিনাজপুরের ঘরের ছেলে

ক্যান্সার গবেষণায় ‘বঙ্গরত্ন’ পাচ্ছেন দক্ষিণ দিনাজপুরের ঘরের ছেলে

ক্যান্সার গবেষণায় ‘বঙ্গরত্ন’ পাচ্ছেন দক্ষিণ দিনাজপুরের ঘরের ছেলে

ক্যান্সার তথা জীববিজ্ঞান গবেষণায় দেশের সর্বোচ্চ সম্মান প্রাপ্ত বিজ্ঞানীকে বঙ্গরত্ন দিচ্ছে রাজ্য সরকার। আগামী ৮ জানুয়ারি শিলিগুড়ির কাঞ্চনজংঘা স্টেডিয়ামে বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শান্তি স্বরূপ ভাটনগর পুরস্কার প্রাপ্ত বিজ্ঞানী ডাঃ তাপস কুন্ডুকে বঙ্গরত্ন-এ ভূষিত করা হবে।

দক্ষিণ দিনাজপুরের হিলিতে বাড়ি মলিকুলার বায়োলজি বিজ্ঞানী ডাঃ তাপস কুন্ডু বর্তমানে বেঙ্গালুরুর জাক্কুরে গবেষণা করছেন। দেশে ও আন্তর্জাতিক স্তরে বহু সম্মানে তিনি ভূষিত। এবছর পশ্চিমবঙ্গ সরকার তাঁকে দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে এই সম্মানিত করতে চলেছে। এব্যাপারে ডাঃ তাপস কুন্ডুর সম্মতি চেয়ে তাঁর হিলির বাড়িতে চিঠিও পাঠিয়েছে রাজ্য সরকার। ডেপুটি সেক্রেটারির সই করা সেই চিঠিতে আগামী ৮ জানুয়ারি শিলিগুড়ির কাঞ্চনজংঘা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত উত্তরবঙ্গ উৎসবের মঞ্চে বঙ্গরত্ন-২০১৮ সম্মান গ্রহণ করবার আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে।

 ডাঃ তাপস কুন্ডু হিলি রমানাথ হাইস্কুল থেকেই লেখাপড়া শিখেছেন। পিতা স্বর্গীয় কালাচাঁদ কুন্ডু হিলি রমানাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। অবিভক্ত পশ্চিম দিনাজপুরের শিক্ষক আন্দোলনের নেতৃত্বও দিয়েছেন। তাঁরা তিন ভাই। বড়ভাই ডাঃ বিপ্লব কুন্ডু কলকাতার মেট্রোপলিটন হোমিওপ্যাথি কলেজের অধ্যাপক। মেজো ভাই হিলি রমানাথ হাইস্কুলের শিক্ষক। ২০১৪ সালে তিনি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় সংসদের চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনীতও হয়েছিলেন।

ডাঃ তাপস কুন্ডু বর্তমানে জওহরলাল নেহেরু সেন্টার ফর এডভান্স সায়েন্টিফিক রিসার্চ(জেএনসিএএসআর)এর গবেষক ও অধ্যাপক। ক্যান্সারের চিকিৎসায় বহু ঔষধ তিনি আবিষ্কার করেছেন। ইতিমধ্যে যেগুলির পেটেন্টও তিনি পেয়েছেন। চিকিৎসা বিজ্ঞান ও গবেষণায় নতুন পথের দিশা দেখানোর জন্য ভারত সরকারের শান্তি স্বরূপ ভাটনগর পুরস্কার ছাড়াও ন্যাশনাল বায়োসায়েন্স অ্যাওয়ার্ড ফর কেরিয়ার ডেভেলপমেন্ট সহ বহু সম্মানে তিনি ভূষিত হয়েছেন।

এব্যাপারে ডাঃ তাপস কুন্ডুর মেজো দাদা কল্যাণ কুন্ডু জানিয়েছেন, জেলাশাসকের মারফত পাঠানো রাজ্য সরকারের চিঠিতে তাঁরা জানতে পেরেছে যে এবছর বঙ্গরত্ন’র জন্য তাঁর ভাইকে মনোনীত করা হয়েছে। এই খবরে তাঁরা সকলেই আপ্লুত। শুধু পরিবারের সদস্য হিসেবেই নয়। দক্ষিণ দিনাজপুরবাসী হিসেবেই নয় উত্তরবঙ্গের মানুষ হিসেবেও এই খবরে তাঁরা সকলেই গর্বিত। দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে বঙ্গরত্ন-২০১৮’এর জন্য ভাইকে মনোনীত করায় রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদ জানাতেও তিনি ভোলেন নি৷

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন