Azizul Bashar
আন্তর্জাতিক

বৃহস্পতিবার | ১৬ আগস্ট, ২০১৮ | ১ ভাদ্র, ১৪২৫ | ৪ জিলহজ্জ, ১৪৩৯

প্রচ্ছদ » খবর » আন্তর্জাতিক » ফের তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া

ফের তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া

ফের তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া

আবারও তীব্র ভুমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া। আবারও সেই লম্বোক। বৃহস্পতিবার নতুন করে কম্পন অনুভূত হয় সেখানে। কম্পনের মাত্রা ৬.১।

মাত্র চারদিন আগেই ভূমিকম্পে লন্ডভন্ড হয়ে যায় ইন্দোনেশিয়া। তার প্রভাব এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি সেদেশের বাসিন্দারা। এরই মধ্যে ফের তীব্র কম্পন সেখানে প্রবল আতঙ্ক ছড়ায়। রবিবারের তীব্র কম্পনের পর এখনও অবধি ১৬০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ১৪০০ মানুষ গুরুতর আহত হয়েছেন। মাটিতে মিশে গিয়েছে ঘর,বাড়ি, স্কুল, কলেজ, মসজিদ। আশ্রয়হীন হাজার হাজার মানুষ। চারিদিক থেকে কেবল মানুষের আর্তনাদ শোনা যাচ্ছে। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে মৃতের সংখ্যা।

রবিবারের পরও পরপর দু’দিন প্রায় ৩৫৫ বার আফটারশক হয়েছে। কিন্তু বৃহস্পতিবারের কম্পনকে কোনও ভাবেই আফটার শক বলতে নারাজ ভূবিজ্ঞানীরা। নতুন করে কম্পন হয়েছে ইন্দোনেশিয়ার লম্বোকে। বিভিন্ন ছবি ও ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা বাইক উল্টে গিয়েছে। কয়েকটি বাড়ির দেওয়াল ভেঙে পড়েছে। ফলে আবারও নতুন করে প্রাণহানির শঙ্কা করা হচ্ছে।

উদ্ধারকার্যের সঙ্গে জড়িত এক ব্যক্তি বলেন, ‘‘আমরা দুর্গতদের সাহায্য করে ফেরার পথে রাস্তায় ট্রাফিকের জন্য আটকে পড়ি। কিছুক্ষণ পর মনে হল আমাদের গাড়িকে কেউ পিছন থেকে জোরে ধাক্কা মারছে। এতটাই তীব্র ছিল সেই কম্পন।’’ কম্পনের জেরে নতুন করে প্যানিক ছড়িয়ে পড়ে বাসিন্দাদের মধ্যে। কেউ বাড়ির মধ্যে থেকে, কেউ গাড়ি থেকে দ্রুত রাস্তায় নেমে আসেন।

এদিকে কম্পনের জন্য বারবার ব্যাহত হচ্ছে উদ্ধার ও ত্রাণ বিলির কাজ। কম্পনের জেরে রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় দুর্গতদের কাছে সময়মতো পৌঁছতে পাচ্ছে না ত্রাণ সামগ্রী। লম্বোকে বাসিন্দারা ডোনেশন ও খাবার চেয়ে কাডবোর্ড নিয়ে রাস্তায় নেমেছে। প্রশাসনের তরফ থেকে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ শুরু হয়েছে। কিছু জায়গা থেকে উদ্ধারকাজ ধীর গতিতে হচ্ছে বলে খবর আসছে। এক্ষেত্রে পরিকাঠামোগত সমস্যাকে দায়ী করছে ইন্দোনেশিয়া সরকার।

 

 

বিসিসি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


মন্তব্য করুন